২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২০শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

একাডেমি কাপ ভালো সুযোগ সবার জন্য


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

১০ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:৪২ অপরাহ্ণ

তৃণমূল পর্যায়ের বয়সভিত্তিক ক্রিকেটাররা পাদপ্রদীপের আলোয় খুব একটা আসেন না। ছায়া হয়ে পড়ে থাকেন নিজ অঞ্চলেই। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আয়োজনে বিসিবি একাডেমি কাপ সেই সুযোগটা তৈরি করে দিতো এ সকল ক্রিকেটারদের জন্য, যেমনটা হয়েছিল জাতীয় টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্ষেত্রেও। এবার সেই বিসিবি একাডেমি কাপ আয়োজিত হচ্ছে আরও বড় পরিসরে।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) সারাদেশের ৯৬টি দল নিয়ে শুরু হয়েছে একাডেমি কাপ। মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উন্মোচিত হয়েছে ট্রফি। এই ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন টি-টোয়েন্টি দলের কাপ্তান মাহমুদউল্লাহও।

অনুষ্ঠান শেষে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মাহমুদউল্লাহ জানিয়েছেন একাডেমি কাপের প্রয়োজনীয়তা। উল্লেখ করেছেন তার জীবনে এই টুর্নামেন্টের প্রভাব কতটা ছিল; তাও।

‘আমার কাছে ব্যক্তিগতভাবে মনে হয় যে, আমিও জাতীয় দলে ঢোকার আগে আমাদেরও প্রথম একাডেমি গঠন হয়েছিল এবং আলহামদুলিল্লাহ আমি এর একটি অংশ। একাডেমি একটা ভালো স্টেজ, জাতীয় দলে ঢুকার আগে। কিন্তু সেহেতু মাঝখানের দুটা বছর করোনা ছিল, তার আগে একাডেমি কাপ হয়েছিল, এবার আরও বড় পরিসরে হচ্ছে, এটা খুবই ভালো সুযোগ সবার জন্য।’

১৭ থেকে ২১ বছর বয়সী ক্রিকেটাররা অংশ নিতে পারবেন বিসিবি একাডেমি কাপে। এই টুর্নামেন্টটি হবে ৫০ ওভারে। দুটি স্তরে দলগুলো অংশ নেবে। স্তরগুলো হলো বিভাগীয় ও জাতীয়। বিভাগীয় রাউন্ডে মোট ম্যাচ হবে ৮৮টি, জাতীয় রাউন্ডে ২৭টি।

বিভাগীয় পর্যায় শেষে ১৬ দল নিয়ে জাতীয় রাউন্ডের খেলা হবে জানুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে। প্রতিভা অন্বেষণ ও বয়সভিত্তিক খেলোয়াড় নির্বাচকরা ম্যাচগুলো দেখবেন এবং মেধাবী ক্রিকেটারদের নির্বাচিত করবেন।

একাডেমি কাপে খেলা ক্রিকেটারদের হতাশ না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। ‘আমি শুধু এতটুকু বলতে চাই খেলোয়াড়ের জন্য যে নিজের ভালো খেলার তাগিদটা যেন সবসময় রাখে এবং হতাশ হওয়া যাবে না। কারণ, এসব বিষয় আমাদের মাথায় নেগেটিভ কাজ করে। শুরুতে বলেছিলাম, অনেক সময় সুযোগ সুবিধা আসবে, অনেক সময় টিম কম্বিনেশনের কারণে ভালো খেলেও জায়গা হারাতে হতে পারে তো এ জিনিসটা যেন হতাশ না হয় অল্পতে এবং কষ্টটা করে যায়।’