৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৬শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

জরুরী ব্যতীত সরকারি রুটিন ভ্রমণ পরিহার


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

২ জুলাই, ২০২১, ৫:৫৯ অপরাহ্ণ

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় অযৌক্তিক ব্যয় কমানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে ২০২১-২০২২ অর্থবছরে উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন বাজেটের আওতায় ভ্রমণ ব্যয় কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে একটি পরিপত্র জারি হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বৈশ্বয়িক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় সরকারের অগ্রাধিকার খাতগুলোতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের মাধ্যমে সীমিত সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করতে ২০২১-২০২২ অর্থবছরে সব সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের পরিচালন ও উন্নয়ন বাজেটে ‘৩২৪৪১০১-ভ্রমণ ব্যয় খাতে বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয়ে সরকার কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সিদ্ধান্তগুলো হচ্ছে- শুধুমাত্র জরুরি ও অপরিহার্য ক্ষেত্র বিবেচনায় ভ্রমণ ব্যয় খাতে বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয় করা যাবে। সরকারি ভ্রমণের ব্যয় নির্বাহের ক্ষেত্রে বরাদ্দকৃত অর্থের ৫০ শতাংশ বরাদ্দ স্থগিত থাকেব। সব ধরনের রুটিন ভ্রমণ পরিহার করতে হবে। এসব সিদ্ধান্ত অবিলম্বে কার্যকর হবে। পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।

এ বিষয়ে অর্থ বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, সরকারি কাজে ভ্রমণ ভাতা খাতে বরাদ্দ দেওয়া অর্থ নানাভাবে ব্যয় দেখানো হয়। দেশে করোনাভাইরাস সৃষ্ট বিদ্যমান অবস্থায় তা মোকাবিলায় সরকার সর্বস্ব দিয়ে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় সরকারি অর্থ যাতে কোনোভাবে অপচয় না হয়, সে কারণে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে নতুন গাড়ি ক্রয় বা প্রতিস্থাপন গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে বরাদ্দকৃত অর্থের ৫০ শতাংশের বেশি ব্যয় করা যাবে না।