২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৪ই রজব, ১৪৪২ হিজরি

জেরুজালেমে তোষারপাত


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৭:৩৩ অপরাহ্ণ

ইসলাম, খ্রিস্টান, ইহুদি- তিন ধর্মের মানুষের কাছেই পবিত্র নগরী জেরুজালেম। সেখানেই রয়েছে ঐতিহাসিক ডোম অব দ্য রক বা কুব্বাত আস-সাখরা। গত বুধবার হঠাৎ করেই শ্বেতশুভ্র তুষারে ছেয়ে গেছে এলাকাটি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের তথ্য অনুসারে, বুধবার রাতভর তুষারঝড়ের পর সকালে ডোম অব দ্য রক এবং ওয়েস্টার্ন ওয়াল সাদা বরফে ঢেকে থাকতে দেখা যায়।

ভোরের আলো ফুটতেই এমন বিরল দৃশ্য দেখতে বাইরে বেরিয়ে আসেন জেরুজালেমবাসী। ছোট ছোট শিশুরা মেতে ওঠে একে অপরের দিকে তুষারবল ছোড়ার খেলায়।

তুষারঝড়ের কারণে বুধবার রাতেই সবধরনের গণপরিবহণ বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় স্থানীয় প্রশাসন। বন্ধ করে দেওয়া হয় নগরীর প্রধান সড়কগুলোও।

তবে সকালে পরিস্থিতির কিছু উন্নতির পর মানুষজনকে আর আটকে রাখা যায়নি। দূর-দূরান্ত থেকে দলে দলে লোকজন জেরুজালেমে ছুটে যান বিরল তুষারপাত দেখতে।

বেন মিলার নামে এক লোক রয়টার্সকে বলেন, আমরা তুষার নিয়ে খেলতে তেল আবিব থেকে চলে এসেছি। জেরুজালেমে তুষার খুব কমই দেখা যায়। সম্ভবত শেষবার ২০১৩ সালে এমনটা হয়েছিল।

আগে ফিলিস্তিনের হলেও বর্তমানে ইসরায়েলের দখলে রয়েছে জেরুজালেম। ডোম অব দ্য রক হলো শহরটির টেম্পল মাউন্টের ওপর অবস্থিত একটি গম্বুজ।

উইকিপিডিয়ার তথ্যমতে, উমাইয়া খলিফা আবদুল মালিক ইবনে মারওয়ানের আদেশে ৬৯১ সালে এর নির্মাণ সমাপ্ত হয়। বর্তমানে এটি ইসলামী স্থাপত্যের সর্বপ্রাচীন নমুনা। তাছাড়া, সাখরা নামের একটি পাথরের কারণেও স্থানটি ধর্মীয় দিক দিয়ে গুরুত্ববহ। ইহুদিরা এর দিকে মুখ করে প্রার্থনা করেন।

ইসলাম ধর্মেরও প্রথম কিবলাহ এই শহরে। পরে মহান আল্লাহপাক কাবাকে মুসলিমদের কিবলাহ নির্ধারণ করেন।