২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২০শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

পারিবারিক সিদ্ধান্তে আকরামের পদত্যাগ


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

২১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:৪৮ অপরাহ্ণ

খবরটা সোমবারই রটে যায়, আকরাম খান ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধানের পদ ছাড়ছেন। খবরটা সত্যি হলেও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসছিল না।

আকরাম নিজেও মুঠোফোন বন্ধ করে রেখেছিলেন। যোগাযোগ করেননি কারো সঙ্গে। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজনও এই বিষয়ে তথ্য দিতে পারেননি। জানা যায়, পারিবারিক সিদ্ধান্তে বিসিবির পরিচালক আকরাম ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরে যাচ্ছেন।

ধারণা করা হচ্ছিল, মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) বিসিবিতে পদত্যাগপত্র জমা দিতে মিরপুরে যাবেন আকরাম। কিন্তু দিনভর অপেক্ষার পর সাবেক অধিনায়ককে সেখানে পাওয়া যায়নি। সন্ধ্যায় নিজ বাসায় সাংবাদিকদের ডেকে নেন তিনি। কিন্তু সেখানেও নিজের সিদ্ধান্ত পুরোপুরি খোলসা করেননি।

জানালেন, গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে সরে যাচ্ছেন। পারিবারিক আলোচনায় এমন সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়েছে। কিন্তু আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিবেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে কথা বলে। আকরাম বলেছেন, ‘আসলে আমি আজ কথা বলতে চাইনি। আপনারা যেহেতু চলে এসেছেন, কিছু তো বলতেই হবে। আমরা পারিবারিকভাবে একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমার ব্যাপারে। যেহেতু আমি আট বছর ক্রিকেট অপারেশন্সে ছিলাম।’

তিনি বলতে থাকেন, ‘এটা নিয়ে আমাদের মাননীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট আমার যিনি অভিভাবক, গত আট বছরে তার কাছ থেকে সবচেয়ে বেশি সাহায্য পেয়েছি কাজের জন্য। যতগুলো খারাপ-ভালো সময় গেছে, সব সময় উনি আমার সঙ্গেই ছিলেন। তো তার সঙ্গে আলাপ করে হয়তো কালকের মধ্যে আমার সিদ্ধান্তটা জানিয়ে দিব।’

আকরাম বললেন, ‘তাকে জানানো ছাড়া আমি আপনাদের কিছু বলতে পারব না। তিনটার দিকে আজ কল করেছিলাম, ধরেননি। হয়তো যেকোনো সময় কল ব্যাক করবেন। কল করলে তার সঙ্গে আলাপ করে নেব।’

সরে দাঁড়ানোর কারণ তিনি জানালেন, ‘পারিবারিক কারণেই সরে যেতে চাচ্ছি। যেহেতু আমি এখানে অনেক বছর ছিলাম। এখানে মানসিক ও শারীরিক শক্তির দরকার হয়। সব মিলিয়েই এই বিরতির সিদ্ধান্ত। তার (নাজমুল হাসান) সঙ্গে আলাপ করে সিদ্ধান্ত, এখন আমি এ নিয়ে কিছুই বলতে চাই না। তার পরামর্শ অনুসরণ করব আমি।’

২০১৪ সালে নাজমুল হাসানের নেতৃত্বে নির্বাচিত কমিটিতে প্রথমবার ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এক বছর যেতে না যেতেই তার জায়গায় দায়িত্ব পান নাঈমুর রহমান দুর্জয়। কিন্তু মিউজিক্যাল চেয়ারের মতো এক বছর পর আবার ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন আকরাম। সেই থেকে টানা ৬ বছর দায়িত্ব চালিয়ে গেছেন তিনি। দলের সাফল্য-ব্যর্থতা সবটাই দেখা হয়েছে তার সময়ে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের বিসিবি নির্বাচনের পর আগের কমিটির প্রধানরাই দায়িত্ব চালিয়ে যাচ্ছিলেন। নতুন করে কমিটি দেওয়ার কথা থাকলেও তিন মাস পেরিয়ে গেছে।