২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১১ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

ভূতের ভয়ে বাইরে বের হয়না মানুষ


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

১৪ এপ্রিল, ২০২০, ৫:২৫ অপরাহ্ণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচার একটি বড় উপায় সামাজিক দূরত্ব এবং বাড়িতে অবস্থান। তবে বেশ কয়েকটি দেশে সরকারের কড়া নির্দেশনার পরও নাগরিকরা তা মানছেন না। বিশেষ করে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ইন্দোনেশিয়ায় প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ার পরও অনেকে নির্দেশনা মানছেন না। এ কারণে দেশটির জাভা আইল্যান্ডের কেপুহ গ্রামে রাতে ভুতের ভয় দেখিয়ে বাসিন্দাদের বাড়ির ভেতরে রাখার অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার উপকথায় ভূতকে বলা হয় ‘পুচং’। মৃত মানুষের আত্মা ভুত হয়ে ঘুরে বেড়ায় স্থানীয়দের মধ্যে এই ধারণা ব্যাপকভাবে প্রচলিত।

ইন্দোনেশিয়ায় এ পর্যন্ত প্রায় চার হাজার ৫০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছে ৪০০ আক্রান্ত।

রয়টার্স জানিয়েছে, ভুতের ভয় দেখানোর পর প্রথম দিকে অবশ্য বিপরীত প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছিল। ভূতরূপী স্বেচ্ছাসেবীদের খুঁজতে লোকজন বেরিয়ে পড়তো। তবে ধীরে ধীরে অবস্থার উন্নতি হতে শুরু করে।

স্থানীয় বাসিন্দা করানো সুপাদমো বলেন, ‘পুচং আসার পর মা-বাবা ও শিশুরা ঘর থেকে বের হয় না। মাগরিবের নামাজের পর লোকজন জড়ো হয় না কিংবা রাস্তাঘাটে অবস্থান করে না।’

ভুতের ভয় দেখানোর এই উদ্যোগটি নিয়েছে গ্রামের তরুণদের একটি দল। স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করেই তারা এ কাজ করছে।

তরুণদের দলটির প্রধান অঞ্জার পানসানিংতায়েস বলেন, ‘আমরা ব্যতিক্রম চেয়েছিলাম এবং ভীতিজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চেয়েছিলাম। কারণ পুচং হচ্ছে ভুতুরে ও ভয়ঙ্কর।’