১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৪ঠা জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

মঙ্গলবার বিএনপি’র বিক্ষোভ


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:৪৯ অপরাহ্ণ

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ফল বাতিলের দাবিতে মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি।

রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণে ধানের শীষের দুই মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও ইশরাক হোসেন ছিলেন। এছাড়া দলের কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, শ্যামা ওবায়েদ, আজিজুল বারী হেলাল, আবদুস সালাম আজাদ, শহিদুল ইসলাম বাবুল, হারুনুর রশীদ, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করীম বাদরু, আনোয়ার হোসেন, সুলতানা আহমেদ, আবুল কালাম আজাদ, ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীতে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত হরতাল কর্মসূচির ডাক দেয় বিএনপি। তবে হরতালে মাঠে দেখা যায়নি নেতা-কর্মীদের। সকালে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান নেন বিএনপি নেতা-কর্মীরা। সেখানে যোগ দেন ঢাকা দক্ষিণে পরাজিত ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন। কর্মসূচিতে উত্তরের মেয়র পদে দলটির পরাজিত প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের অংশ নেয়ার কথা থাকলেও তিনি আসেননি।

কার্যালয়ের সামনে নেতারা প্রতীকী ইভিএম পুড়িয়ে বিক্ষোভ করেন। অবস্থানরত দলটির নেতা-কর্মীদের সরে যেতে ৩০ মিনিটের আলটিমেটাম দিয়েছিল পুলিশ। পুলিশের দেয়া আল্টিমেটামের মাত্র তিন মিনিটের মধ্যেই তারা রাস্তা ছেড়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে চলে যান।

নগরীর অন্য কোথাও হরতালের স্বপক্ষে বিএনপি নেতা-কর্মীদের কোনো ধরনের তৎপরতা দেখা যায়নি। সড়কে যানবাহন চলাচলে কোনও বাধা না থাকলেও অন্যান্য দিনের তুলনায় সংখ্যা ছিল কম। হরতালে যে কোনও ধরনের সহিংসতা ঠেকাতে রাজধানীজুড়ে নিরাপত্তা জোরদার করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।