১৭ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৫ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি

মৌলভীবাজারে পুলিশ ও আওয়ামীলীগের সহযোগিতায় আজহারীর মাহফিল সম্পন্ন


এমদাদুল হক | PhotoNewsBD

২ জানুয়ারি, ২০২০, ৮:৩৫ পূর্বাহ্ণ

তীব্র শীত ও প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে এবং পুলিশের কড়া নিরাপত্তা ও জেলা আওয়ামীলীগ নেতাদের সহযোগিতায় মধ্য দিয়ে মৌলভীবাজারের সদর ও বড়লেখা উপজেলায় শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে সমকালীন বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় তরুণ মুফাসসির ও ইসলামিক স্কলার, তরুণ সমাজের হৃদয়ের স্পন্দন, বিশ্ববিখ্যাত আলেমেদ্বীন, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মোফাসসিরে কুরআন ড. মাওলানা মিজানুর রহমান আল-আজহারীর ওয়াজ ও মাহফিল।

৩১ ডিসেম্বর বড়লেখার সুজানগর ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদের আয়োজনে ছিদ্দেক আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এবং ১ জানুয়ারি সদর উপজেলার সরকার বাজার সিএনজি শ্রমিক সমিতির আয়োজনে ড. মাওলানা মিজানুর রহমান আল-আজহারী মাঠে আসার আগেই কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে উপচে পড়ে জনতার ঢল। তখন জনতার স্রোতে মাহফিল স্থল ও আশপাশের এলাকা মহা জনসমূদ্রে পরিণত হয়। তাঁর আগমনের এক সপ্তাহ আগে থেকেও পুরো মৌলভীবাজার আনন্দের বন্যায় ভেসে উঠে। সাজ সাজ রব উঠে মাহফিলকে ঘিরে।

মৌলভীবাজার সদরে আজহারীর মাহফিলে অতিথি হিসেবে ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও মৌলভীবাজার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেন। এছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গ ও দল-মত নির্বিশেষে গুরুত্বপূর্ণ সবগুলো সেক্টরের লোকজন ড. মাওলানা মিজানুর রহমান আল-আজহারীর মাহাফলে উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানায়, ড. মিজানুর রহমান আজহারীর ওয়াজ শুনতে শিশু থেকে শুরু করে লক্ষাধিক নারী-পুরুষের সমাগম ঘটে। বিশেষ করে মৌলভীবাজার জেলার লোকজন ছাড়াও সিলেট বিভাগের সবগুলো জেলা-উপজেলা থেকে এসে লোকজন তার মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, মিজানুর রহমান আজহারীর মাহফিল ঘিরে নিরাপত্তার জন্য আমরা পুলিশ মোতায়েন করেছিলাম। পাশাপাশি বিভিন্ন বাহিনীর আরও সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। মাহফিলে লক্ষাধিক মুসল্লি উপস্থিত ছিলেন। সব মিলিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে মাহফিল সম্পন্ন হয়েছে। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। মাহফিল শেষে সবাই নিরাপদে বাড়ি ফিরেছেন।

এর আগের দিন মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সুজানগর ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদে মিজানুর রহমান আল-আজহারীর ওয়াজ ও মাহফিলের আয়োজন করা হয়। তীব্র শীত উপেক্ষা করে আজহারীর মাহফিলে লাখো মানুষের ঢল নামে।

৩১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাতে সুজানগর ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদের ১১ তম তিনদিন ব্যাপী ঐতিহাসিক তাফসিরুল কুরআন মাহফিলের ৩য় দিনের সমাপনী অধিবেশনে মহাগ্রন্থ আল-কুরআন থেকে তাফসীর পেশ করেন ড. মাওলানা মিজানুর রহমান আল-আজহারী।

রাত ৯টায় আজহারী আসার প্রচার শুনা মাত্রই মাহফিলে প্যান্ডেলের চার পাশে প্রায় দুই কিলোমিটার সড়ক ব্লক হয়ে যায়। দূরের মুসিল্লরা দুই কিলোমিটার দূরে যানবাহন রেখে পায়ে হেটে ময়দানে অবস্থান করে।

ড. মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী তাফসীরুল কুরআন মাহফিলে পারিবারিক শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য কুরআন হাদিসের আলোকে ১০ দশটি বিধানের উপর বিশদ আলোচনা করেন। মাহফিলের আয়োজক কমিটির সহ-সভাপতি হাফিজ কুতুব উদ্দিন বলেন, “ধর্মপ্রাণ মুসল্লির অংশগ্রহণে শান্তিপূর্ণভাবে তিনদিন ব্যাপী তাফসিরুল কুরআন মাহফিল শেষ হয়েছে। কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ প্রশাসন আমাদেরকে যথেষ্ট সহযোগিতা করেছে। আমরা ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদের পক্ষ থেকে সবাইকে আন্তরিক মুবারকবাদ ও ধন্যবাদ জানাই।”