২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

রাজ্য ভ্রমণে নতুন করে করোনা টেস্ট করাতে হবে না


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

৮ জুলাই, ২০২১, ৪:৪৩ অপরাহ্ণ

কোভিড-১৯ এর দুই ডোজ টিকা নেওয়া হলে এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্য ভ্রমণে নতুন করে করোনা টেস্ট করাতে হবে না। এছাড়া তাদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার বাধ্যকতা শিথিল করতে যাচ্ছে ভারত।

ন্যাশনাল এক্সপার্ট গ্রুপ অন ভ্যাকসিন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এবং ন্যাশনাল টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজরি গ্রুপ অন ইমিউনাইজেশন অব ইন্ডিয়া সম্প্রতি ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে এক বৈঠকে এই সুপারিশ করেছে।

কোভিড-১৯ ওয়ার্কিং গ্রুপের চেয়ারম্যান ডা. এন কে অরোরা জানান, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে দেওয়া সুপারিশপত্রে যারা দেশের বাইরে ভ্রমণে ইচ্ছুক তাদেরকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এখন থেকে দেশের অভ্যন্তরে চলাচলের জন্য টিকার দুই ডোজ প্রাপ্ত ব্যাক্তিদের নতুন করে করোনা টেস্ট করাতে হবে না, এমনকি কোয়ারেন্টাইনেরও দরকার নেই। কেউ যদি বিদেশ যেতে যান, তাদেরও করোনা টেস্ট করাতে হবে না, এমনকি বিদেশ থেকে ভারতে ফিরতে চাইলেও তাদের কোয়ারেন্টাইনের দরকার নেই। তবে বাইরের দেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট দেশ যদি মনে করে নেগেটিভ রিপোর্ট থাকা জরুরি তাহলে নিজ দায়িত্বে ভ্রমনকারীরা তা করে নিবে। সুপারিশটি সব রাজ্যে কার্যকর করতে ইতোমধ্যে জানানো হয়েছে।’

ট্রাভেল এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়ার সভাপতি জ্যোতি ময়াল বলেছেন, এখনও অনেক রাজ্য বিষয়টি সম্পর্কে জানে না। তাই এটি সরকারি গেজেট আকারে প্রতি রাজ্যে পাঠানো উচিত যাতে ভ্রমণে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের সমস্যায় পড়তে না হয়।

তিনি বলেন, ‘প্রতিটি রাজ্যেরই করোনা টেস্ট ও কোয়ারেন্টাইন সংক্রান্ত নিজস্ব নিয়ম-নীতি রয়েছে। আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে যাতে প্রতিটি রাজ্যের জন্য সমান নীতি গ্রহন করা হয়। যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছে, তাদের মহারাষ্ট্র ও পশ্চিমবঙ্গের মতো অন্যান্য রাজ্য প্রবেশের নিয়ম সহজ করে দেওয়া উচিত। যেহেতু আন্তর্জাতিক সীমান্তগুলো খুলে দেওয়া হচ্ছে, সরকারের উচিত মানুষের চলাচলের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধগুলো সহজ করে দেওয়া।’