১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সরকারের দায় আমাদেরও বহন করতে হয়: মেনন


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

২৫ নভেম্বর, ২০২১, ৬:১০ অপরাহ্ণ

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ১৫ দল, তিন জোটের অঙ্গীকার, ১৪ দল গঠনের মধ্যদিয়ে আমরা বর্তমান পর্যায়ে এসেছি। নেতৃত্বে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু এর ভিত্তি ছিলো অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক শক্তির ঐক্য। আমাদের জোট আছে। ১৪ দলে আছি। তবে কেবল দিবস পালনে। নীতি নির্ধারণে কোনো অংশ নয়।

তিনি বলেন, ‘সরকারের দায় আমাদেরও বহন করতে হয়। আওয়ামী লীগের কাছে ১৪ দলের অথবা অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক ঐক্যের প্রাসঙ্গিকতা আছে কি না জানি না।’

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে জাতীয় সংসদে বিশেষ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘দেশে জিডিপি ও মাথাপিছু আয়ও বেড়েছে। কিন্তু দেশের সম্পদ মুষ্টিমেয় গোষ্ঠীর হাতে। করোনাকালেও কোটিপতিদের সংখ্যা বেড়েছে। ধনীর সংখ্যা বৃদ্ধিতে বাংলাদেশ এ অঞ্চলে প্রথম। গড় জাতীয় আয় বাড়লেও জনগণের আয় কমেছে।’

এ সময় স্বাস্থ্য খাতের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘স্বাস্থ্য খাত অব্যবস্থাপনায় নিমজ্জিত। কোভিডের আরেকটি ঢেউ এলে কতখানি সামাল দেওয়া যাবে তা জানা নেই। স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে পুনর্গঠিত করতে হবে। কোভিডের কারণে শিক্ষাখাতে বেহাল অবস্থা। একমুখী শিক্ষার নামে বিএনপি আমলে যে ষড়যন্ত্র হয়েছিল তার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে বলে মনে হয়।’

তিনি বলেন, ‘এরশাদ-খালেদা ধর্মের ব্যবহার ও মৌলবাদের জন্ম দিয়েছে। জন্ম দিয়েছে জঙ্গীবাদের। সাম্প্রদায়িকতার বিস্তার ঘটিয়েছে। বিস্তার ঘটিয়েছে সাম্প্রদায়িক মানসিকতার। জামায়াত ইসলাম এ দেশে ইসলামের উদার নৈতিকতা ধ্বংস করেছে।’