২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৩ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

হামলার জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করলেন: ইশরাক


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:০২ অপরাহ্ণ

টিকাটুলীতে নির্বাচনী প্রচারে হামলার নিন্দা জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন। এ হামলার জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের লোকজন বিনা উসকানিতে আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা চালিয়েছে।

রোববার বেলা পৌনে ২টার দিকে গোপীবাগ এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনার পর নিজ বাসায় গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রকৌশলী ইশরাক বলেন, আওয়ামী লীগ ধানের শীষের জনপ্রিয়তায় ভীত। সে জন্য নির্বাচন বানচাল করতে বিনা উসকানিতে এ হামলা করেছে তারা। হামলার সময় তাদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল এবং গুলির শব্দও শোনা গেছে। এতে ২-৩ জন ক্যামেরাপারসনসহ বেশ কজন আহত হয়েছেন। আমার দিকেও ইটপাটকেল ছোড়া হয়েছে, আমার নেতাকর্মীরা সেসব থেকে আমাকে রক্ষা করেছেন।

রোববার বেলা ১টার দিকে রাজধানীর গোপীবাগে নির্বাচনী গণসংযোগ চালাতে গেলে ইশরাকের কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। বিএনপির নেতাকর্মীদের অভিযোগ– আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসের সমর্থকরা এ হামলা চালায়।

এ সময় দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। প্রায় ৪০ মিনিট থেকে থেমে এ সংঘর্ষ চলে।

সংঘর্ষের বর্ণনা দিয়ে ইশরাক বলেন, আমাদের গণসংযোগের কর্মসূচি ছিল মতিঝিল হয়ে ইত্তেফাক মোড় এলাকায়। সেখান থেকে বাসায় (গোপীবাগ) ফিরছিলাম। তখন জানতে পারি আমাদের এক কর্মীকে আওয়ামী লীগের কর্মীরা আটক করে রেখেছে। তাকে ছাড়াতে এগিয়ে গেলে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

বিএনপির কর্মীরা গুলি করেছেন বলে অভিযোগের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ইশরাক বলেন, গুলি করতে হলে তো অস্ত্র থাকা লাগবে। আমাদের হাতে অস্ত্র আছে? এই আওয়ামী লীগ সরকারের সময় বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের হাতে অস্ত্র থাকতে পারে? বরং আওয়ামী লীগের লোকদের হাতে অস্ত্র ছিল।