২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

২০২১ সালে বাংলাদেশের অর্থনীতি চাঙ্গা হবে: এডিবি


ফটোনিউজবিডি ডেস্ক: | PhotoNewsBD

১৮ জুন, ২০২০, ৪:০৭ অপরাহ্ণ

মন্দার পর শিগগিরই বাংলাদেশের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের সম্ভাবনা রয়েছে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কমলে ২০২১ সালে বাংলাদেশের অর্থনীতি চাঙ্গা হবে। এছাড়া চলতি অর্থবছর শেষে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৪ দশমিক ৫ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) এশীয় উন্নয়ন আউটলুকের প্রতিবেদনে এমন পূর্বাভাস দিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি)।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি অর্থবছর শেষে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) দেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৪ দশমিক ৫ শতাংশ এবং ২০২১ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পেয়ে হবে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ।

এডিবি বলেছে, কোভিড-১৯ এর ফলে বিশ্ব তথা বাংলাদেশে মহামারির প্রভাব পড়েছে। যার ফলে গত তিনমাসে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড দ্রুত হ্রাস পেয়েছে। তবে ২০২১ অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৫ শতাংশ উন্নীত হবে।

এ বিষয়ে এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন পারকাশ বলেন, কোভিড-১৯ এর ফলে ২০২০ অর্থবছরের প্রথম নয় মাসে বাংলাদেশের অর্থনীতি ধীর গতিতে চলবে। কিন্তু ২০২১ অর্থবছরে অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে পূর্ণ গতি পাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার, বিনিয়োগ আকর্ষণ, স্থানীয় কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, কৃষক, উদ্যোক্তা এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সুযোগ দেশের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে সাহায্য করবে। এডিবি এখন পর্যন্ত ৬০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ, জরুরি স্বাস্থ্য ব্যবস্থার রক্ষণাবেক্ষণ এবং মহামারিতে আর্থ-সামাজিক প্রভাব কমানোর জন্য ১ দশমিক ৪ মিলিয়ন ডলার অনুদান দিয়েছে। কোভিড-১৯ মহামারীর প্রভাব পুনরুদ্ধার করতে এডিবির সাহায্য অব্যাহত থাকবে।

সংস্থাটি বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানায়, সরকারের কঠোর লকডাউনের ফলে অর্থবছরের শেষ তিনমাসে ভোগ, উৎপাদন এবং বিনিয়োগ দ্রুত হ্রাস পেয়েছে। এছাড়া রপ্তানি আয় দ্রুত হ্রাস পেয়েছে। জুন মাস থেকে ধীরে ধীরে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার ফলে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ধীরে ধীরে স্বাভাবিক পথে ফিরে আসতে শুরু করেছে।